Web
Analytics

মেলা ‘দখল’ করে রেখেছেন লতিফুল ইসলাম শিবলী

তার মূল পরিচিতি একজন গীতিকার হিসেবে। যার অদ্ভুত গীতিকাব্যে জনপ্রিয় হয়েছে অসংখ্য গান। কাব্যের মানুষ। তাই ১৯৯৫ সালেই বের হয়েছিল প্রথম কবিতার বই
ইচ্ছে হলে ছুঁতে পারি তোমার অভিমান। এরপর আরো দুটি। অসংখ্য জনপ্রিয় গানের তালিকা তৈরি করতে গেলে নতুন ফিচার লিখতে হবে। কিন্তু এতোসবের বাইরে যে একজন কথাশিল্পী লুকিয়ে ছিল, সেটি টের পাওয়া গেল ২০১৭ সালে। গত বইমেলায় তাঁর লেখা উপন্যাস ‘দারবিশ’ ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। দারবিশ প্রকাশ করেছিল নালন্দা। অার সেই ধারবাহিকতায় শিবলীর এবারের উপন্যাস ‘দখল’। বলা বাহুল্য শুরু থেকেই দারুন সাড়া মিলছে শিবলীর দখল এর। একারনেই কেউ কেউ বলছেন মেলা নাকি দখলে রেখেছেন শিবলী!

গল্পটা ক্ষমতার পালাবদলের কিংবা শুধুই ভালোবাসার। গল্পটা ঢাকা শহরের। যে শহরকে আমরা চিনি না। যে শহর নিয়ন্ত্রণ করতে সরকারি আইনের থেকে বেসরকারি আইনের কার্যকারিতা থাকে অনেক বেশি। আন্ডারওয়ার্ল্ড। দেশের সরকারের মতো এখানেও আছে শহরের সব শ্রেণির নাগরিকদের ওপর গোপন নিয়ন্ত্রণ আর ক্ষমতার পালাবদলের খেলা।

এমন সব আন্ডারওয়ার্ল্ড ক্রাইম থ্রিলার কিংবা কাইন্ড অব রোমান্টিক থ্রিলার নিয়ে বইটি লিখেছেন প্রখ্যাত গীতিকবি লেখক লতিফুল ইসলাম শিবলী। বইটি নালন্দা প্রকাশনী থেকে এবারের বইমেলায় এসেছে। ১৪২ পৃষ্ঠায় রচিত বইটির মূল্য ধরা হয়েছে ৩০০ টাকা। পাওয়া যাবে প্যাভিলিয়ন-১এ।
বইটি নিয়ে কথা হয় লেখক লতিফুল ইসলাম শিবলীর সঙ্গে। মেলা কেমন উপভোগ করছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেলা এখনো জমে উঠেনি। তবে কয়েক দিনের মধ্যে জমবে আশা করা যাচ্ছে।

বইয়ের কেমন সাড়া পাচ্ছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, ভালোই সাড়া পাচ্ছি। গত মেলায় আসা ‘দারবিশ’ থেকে এই বইয়ের বিক্রি বেশি হবে আশা করা যাচ্ছে।

উল্লেখ্য লতিফুল ইসলাম শিবলী, একাধারে তিনি গীতিকার, সুরকার, সঙ্গীত পরিচালক, মডেল, নাট্যকার, অভিনেতা এবং নিঃসন্দেহেই একজন নান্দনিক শিল্পী ও একজন নাগরিক কবিয়াল। গীতিকার লতিফুল ইসলাম শিবলী, একের পর এক লিরিক উপহার দিয়ে ৯০-দশকের পুরোটা সময়ই শ্রোতাদের মাতিয়েছেন জনপ্রিয় গানের সুরেলা ঝঙ্কারে। যা লিখেছেন তাতেই যেন ঠাই করে নিয়েছে সবচেয়ে উপযুক্ত সুর ও গায়কীর স্বর্গীয় কোন অনুভূতি। আইয়ুব বাচ্চু, জেমস, পার্থ, শাফিন আহমেদ, হামিন আহমেদ, আজম খান, টিপু, নকিব খান, বিপ্লব, চন্দন, জুয়েল, সুমনা হক, ঝলক থেকে শুরু করে নাম না জানা অনেক শিল্পীর জন্য লিখেছেন প্রায় ৩০০-র বেশি গান। এবি-এল.আর.বি এবং জেমস ও ফিলিংসের জনপ্রিয়তার পেছনের এক অনন্য কারিগর।

আইয়ুব বাচ্চু ও জেমসের জনপ্রিয়তার পেছনে এককভাবে যদি কাউকে স্বীকৃতি দেয়া হয় তবে লতিফুল ইসলাম শিবলীর অবস্থান থাকবে অন্য সবার চেয়ে অনেক উপরে। জনপ্রিয় ব্যান্ড এল.আর.বি তাদের ২০ বছরপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত প্রোগ্রামে ‘ম্যান অব দ্যা এল.আর.বি’ নির্বাচিত করে লতিফুল ইসলাম শিবলীকে। শিবলীর লেখা জনপ্রিয় সব গানগুলোর দিকে একবার তাকালে যে কেউই চমকে ওঠবে। চলুন চোখ বুলিয়ে নেয়া যাক।

জেমস ও ফিলিংসঃ ‘মান্নান মিয়ার তিতাস মলম’, ‘জেল থেকে বলছি’, ‘জানালা ভরা আকাশ’, ‘প্রিয় আকাশী’, ‘নাটোর স্টেশন’, ‘মধ্যরাতের ডাকপিয়ন’, ‘একজন বিবাগী’, ‘কতটা কষ্টে আছি’, ‘যতটা পথ’, ‘গীটার কাঁদতে জানে’, ‘হেরেমের বন্দিনী’, ‘পালাবে কোথায়’, ‘জোসি প্রেম’, ‘পেশাদার খুনি’, ‘নীলাকাশ যত দূর দেখা যায়’, ‘পূর্ণিমা নৃত্য’, ‘জঙ্গলে ভালোবাসা’, ‘প্রাণের শহর’ থেকে শুরু করে আরও অনেক অনেক গান লিখেছেন জেমস ও ফিলিংসের জন্য। ফিলিংসের ‘নগর বাউল’ অ্যালবামের তিনটি গান, ‘জেল থেকে বলছি’ অ্যালবামের পাঁচটি গান, জেমসের সলো ‘পালাবে কোথায়’ অ্যালবামের ছয়টি গান, ‘দুঃখিনী দুঃখ করোনা’ অ্যালবামে তিনটি করে গান স্থান পেয়েছে। যেসব গান জেমস ও ফিলিংসকে করে তুলেছে জনপ্রিয়।

এবি-এল.আর.বিঃ ‘আমি কষ্ট পেতে ভালোবাসি’, ‘কেউ সুখী নয়’, ‘হাসতে দেখ গাইতে দেখ’, ‘নীল বেদনায়’, ‘আহা! জীবন’, ‘ও আমার প্রেম’, ‘বন্দী জেগে আছে’, ‘মাকে বলিস’, ‘মানুষ বড় একা’, ‘বড় বাবু মাস্টার’, ‘কষ্ট কাকে বলে’, কি যে কষ্ট আমার’, ‘তুমি নও’, ‘খুব সাধারণ জীবন আমার’, ‘চাঁদ মামা’, ‘রাজকুমারী’সহ আরো অনেক অনেক গানের গীতিকার লতিফুল ইসলাম শিবলী।

অন্যদিকে, শুধু এবি-এল.আর.বি কিংবা জেমস-ফিলিংসকে নিয়েই পড়ে থাকেন নি এই নাগরিক কবিয়াল। গান লিখেছেন আরও অনেক শিল্পীর জন্য। খালিদের ‘যতটা মেঘ হলে বৃষ্টি নামে’, পার্থর ‘বৃষ্টি দেখে অনেক কেঁদেছি/হাজার বর্ষা রাত’, ‘শাফিনের ‘পলাশীর প্রান্তর’, ‘শহর থেকে দূরে’, হামিনের ‘শেষ ঠিকানা’, সুমনা হকের ‘মাঝে কিছু বছর গেলো’, আজম খানের ‘জীবনের শেষ কটা দিন’, চন্দনের ‘তুমি আর কারো নয়’, টিপুর ‘হাত বাড়ালেই বন্ধু হবো’, ঝলকের ‘দূরে কোথাও’ সহ জানা অজানা অনেক শিল্পীর অনেক অনেক গান।

এছাড়াও তপন চৌধুরী ও শাকিলা জাফরের করা ব্যপক জনপ্রিয় (সুপার-ডুপার হিট) রোমান্টিক ডুয়েট সং ‘তুমি আমার প্রথম সকাল/একাকী বিকেল ক্লান্ত দুপুর বেলা’ গানের গীতিকার এই লতিফুল ইসলাম শিবলী।