একাধিকবার বিয়ের পিঁড়িতে বসা তারকারা..

0
72

বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনে এ পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য সংখ্যক গায়িকার আবির্ভাব ঘটেছে। এদের অনেকেই সাফল্যের শিখরে পৌঁছলেও ব্যক্তিজীবনে সংসার নিয়ে হোঁচট খেতে হয়েছে অনেকের। আর এ কারণে এই তারকাদের বিয়ের পিঁড়িতে বসতে হয়েছে একাধিকবার।

বাংলাদেশ টাইমস পাঠকদের জন্য থাকছে এমন কিছু কণ্ঠশিল্পীদের একাধিক বিয়ের খবর, যা হয়তো অনেকের অজানা।

সাবিনা ইয়াসমিন:

বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের জীবন্ত কিংবদন্তি সাবিনা ইয়াসমিন। তিনি প্রথমে বিয়ে করেছিলেন এক ব্যাংক ম্যানেজারকে। সেই সংসারে তাদের এক কন্যাসন্তান রয়েছে। কিন্তু বেশিদিন টেকেনি সে সংসার। এরপর তিনি বিয়ে করেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নৃত্য পরিচালক আমির হোসেন বাবুকে। দীর্ঘদিন সংসার করার পর তাদেরও বিচ্ছেদ হয়ে যায়। এ সংসারে রয়েছে সাবিনার এক পুত্রসন্তান। পরে এই শিল্পী বিয়ে করেন কলকাতার জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সুমন চট্টোপাধ্যায়কে, যিনি পরে ধর্মান্তর হয়ে কবির সুমন নাম ধারণ করেন।

রুনা লায়লা:

উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী রুনা লায়লা। এ পর্যন্ত তিনবার বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন তিনি। তার প্রথম বিয়ে হয় খাজা জাভেদ কায়সার নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে। তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন সুইজারল্যান্ডের নাগরিক রন ড্যানিয়েলকে। সর্বশেষ তিনি গাঁটছড়া বাঁধেন বাংলা চলচ্চিত্রের খ্যাতিমান অভিনেতা-পরিচালক আলমগীরের সঙ্গে।

শাকিলা জাফর:

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী শাকিলা জাফর। এখন আর আগের নাম নেই এই শিল্পীর। নাম পাল্টিয়ে হয়েছেন ‘শাকিলা শর্মা’। নতুন বিয়ের কারণেই তার নামের এই পরিবর্তন। তার নামের সঙ্গে জাফর ছিল আগের স্বামীর নামের অংশ হিসেবে। ডিভোর্সের পরও তিনি নামটি না পাল্টালেও নতুন বিয়ের পর ঠিকই পাল্টেছেন।

সামিনা চৌধুরী:

আরেক জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সামিনা চৌধুরী। প্রথমে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী, সুরকার ও সংগীত পরিচালক নকীব খানকে। কিন্তু মতের অমিল হওয়ায় সে বিয়ে ভেঙে যায় তাদের। পরে সামিনা চৌধুরী বিয়ে করেন অনুষ্ঠান নির্মাতা এজাজ খান স্বপনকে।

ডলি সায়ন্তনী:

ডলি সায়ন্তনী প্রথমে বিয়ে করেছিলেন গীতিকার আহমেদ রিজভীকে। এই সংসার ভেঙে যাওয়ার পর ডলি ভালোবেসে বিয়ে করেন সংগীতশিল্পী রবি চৌধুরীকে। কিন্তু এই ভালোবাসার সংসারও টেকেনি। পরবর্তী সময়ে ফাইজান নামে চট্টগ্রামের এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেন জনপ্রিয় এই কণ্ঠশিল্পী।

মমতাজ:

মমতাজের প্রথম স্বামী আবদুর রশীদ সরকার। তার দ্বিতীয় স্বামী ছিলেন মানিকগঞ্জ পৌরসভা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রমজান আলী। এটি মোহাম্মদ রমজান আলীরও দ্বিতীয় বিয়ে ছিল। মমতাজের তৃতীয় স্বামী মইনউদ্দিন হাসান চঞ্চল। যিনি মমতাজের প্রতিষ্ঠিত মমতাজ চক্ষু হাসপাতালের একজন চিকিৎসক। মইনউদ্দিন হাসান চঞ্চলের এটি দ্বিতীয় বিয়ে।

নাজমুন মুনিরা ন্যান্‌সি:

নাজমুন মুনিরা ন্যান্‌সি। ২০০৬ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেন ব্যবসায়ী আবু সাঈদ সৌরভকে। ২০১২ সালের ২৪ মে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের ছয় বছরের সংসার জীবনের ইতি ঘটে। পরে ২০১৩ সালের ৪ মার্চ তিনি নাজিমুজ্জামান জায়েদকে বিয়ে করেন। জায়েদ ময়মনসিংহ পৌরসভায় চাকরি করছেন এবং ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত।

হৃদয় খান:

জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী হৃদয় খান। ২০১০ সালের শুরুর দিকে পূর্ণিমা আকতার নামের একজনকে বিয়ে করেছিলেন তিনি। ছয় মাসের মাথায় সেই সংসার ভেঙে যায়। তার আগে সাত বছর প্রেম করেন নওরীন নামের আরেকজন মেয়ের সঙ্গে। অন্যদিকে, ২০১৪ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেন মডেল সুজানাকে। তার সেই বিয়ে টিকেছিল মাত্র চার মাস।

সর্বশেষ, হৃদয় খান আবারো বিয়ে করেছেন। তার বউয়ের নাম হুমায়রা, থাকেন মালেয়শিয়া।

রুমানা খান:

মডেল ও অভিনেত্রী রুমানা খান। তিনি মার্কিন নাগরিক ব্যবসায়ী এলিন রহমানের সঙ্গে তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন। এর আগে, রুমানার প্রথম বিয়ে হয় উপস্থাপক ও নির্মাতা আনজাম মাসুদের সাথে। পরে সে বিয়ে ভেঙে গেলে দ্বিতীয় বিয়ে হয় ব্যবসায়ী সাজ্জাদের সাথে।

চিত্রনায়িকা ময়ূরী:

তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন চিত্রনায়িকা ময়ূরী। স্বামী মোহাম্মদ জুয়েল আহমেদ, একজন মাদরাসা শিক্ষক। এদিকে ময়ূরীর প্রথম স্বামী রেজাউল করিম খান মিলন ছিলেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান। তিনি মারা যান ২০১৫ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর। এরপর ময়ূরী দ্বিতীয়বারের মতো বিয়ে করেন শ্রাবণ শাহ নামের এক চলচ্চিত্র অভিনেতাকে। কিন্তু সেই সংসারও টেকেনি। পরে এই নতুন সংসার শুরু করেছেন তিনি।

রবি চৌধুরী:

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী রবি চৌধুরী। সর্বশেষ তিনি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্রী রিফাত আরা রামিজার সঙ্গে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন। এর আগে, সংগীতশিল্পী ডলি সায়ন্তনী এবং এরপর বৃহত্তর চট্টগ্রামের একটি মেয়েকে বিয়ে করেছিলেন রবি চৌধুরী।

অপি করিম:

তৃতীয়বারের মত বিয়ে করেছেন জনপ্রিয় নাট্যতারকা অপি করিম। তার বর্তমান স্বামী নির্মাতা এনামুল করিম নির্ঝর। এর আগে, ২০০৭ সালের ২৭ অক্টোবর সম্পূর্ণ পারিবারিক পছন্দে অপির বিয়ে হয়েছিল জাপান প্রবাসী অধ্যাপক ড. আসির আহমেদের সঙ্গে। ঠিক এক বছরের মধ্যে মাথায় অপির সেই সংসার ভেঙে যায়। বিচ্ছেদের পর ২০১১ সালে ফের বিয়ে করেন নাট্যনির্মাতা মাসুদ হাসান উজ্জলকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here